আনন্দবাজার পত্রিকা - দক্ষিণবঙ্গ


 
টুকরো খবর
ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার প্রেমিক
স্বামী-বিচ্ছিন্না এক মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগে তাঁর প্রেমিককে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতের নাম বাকিবিল্লা সর্দার। বাড়ি বসিরহাটের রামনগরে। পুলিশ জানায়, বসিরহাটের শাঁকচুড়ো-বাগুন্ডি পঞ্চায়েতের বাঁশঝাড়ি গ্রামের বাসিন্দা ওই মহিলার সঙ্গে রাজমিস্ত্রির কাজ করতে গিয়ে ঘনিষ্ঠতা হয় বাকিবিল্লার। ওই ব্যক্তিও বিবাহিত। মহিলার অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার সহবাস করেন বাকিবিল্লা। বুধবার সকালে ওই ব্যক্তিকে মহিলার বাড়ি থেকে বেরোতে দেখেন গ্রামবাসীরা। মহিলা দাবি করেন, রাতে তাঁর বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে ধর্ষণ করেন বাকিবিল্লা। মহিলাকে বিয়ের জন্য বাকিবিল্লাকে চাপ দেন গ্রামের লোকজন। বিকেলে এসে বিয়ে করবেন বলে মোটরবাইক রেখে চলে যান ওই ব্যক্তি। রাত ৯টা নাগাদ যখন ওই যুবক কয়েক জন আত্মীয়কে নিয়ে পৌঁছন গ্রামে, ততক্ষণে বিয়ের নির্ঘণ্ট পেরিয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যে যুবকের ফেলে যাওয়া মোটরবাইকটি কোথায় রাখা হবে, তা নিয়ে দু’তরফে বচসা বাধে। মহিলার অভিযোগ, বাকিবিল্লার আত্মীয়রা তাঁকে মারধর করে। বৃহস্পতিবার থানায় গিয়ে বাকিবিল্লার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও তাঁর তিন আত্মীয়ের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ করেন ওই মহিলা। তাঁর কথায়, “আমি ওকে ভালবাসতাম। কিন্তু ও আমাকে ঠকিয়েছে।” বাকিবিল্লার বক্তব্য, “আমি তো ওকে বিয়ে করব বলে স্ত্রীর কাছ থেকে অনুমতিও নিয়েছিলাম। কিন্তু স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ায় সমস্যা হয়। তা সত্ত্বেও বিয়েতে রাজি হই। কিন্তু মাঝখান থেকে আত্মীয়েরা মারামারিতে জড়িয়ে না পড়লে এমনটা হত না।”

তৃণমূলের অফিসে আগুন
আগুনে ভস্মীভূত হল তৃণমূলের আঞ্চলিক পার্টি অফিস। বৃহস্পতিবার ভোরে বসিরহাটের শাঁকচুড়ো-বাগুণ্ডি পঞ্চায়েতের সীমান্তের সোলাদানা বাজারে ওই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজনই জল দিয়ে আগুন নেভান। তবে ততক্ষণে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ব্যানার, পতাকা, ফেস্টুন পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। তাদের অনুমান, শট সার্কিট থেকেই অগ্নিকাণ্ড। যদিও তৃণমূলের রাজ্য নেতৃত্বের দাবি, এর পিছনে সিপিএমের হাত রয়েছে। সিপিএম নেতৃত্বের বক্তব্য, তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এই অগ্নিকাণ্ড।

নাবালিকা ‘অপহরণে’ ধৃত অভিযুক্তের মা
ছেলের বিরুদ্ধে প্রতিবেশী ‘নাবালিকা’ অপহরণের অভিযোগে মা’কে গ্রেফতার করল পুলিশ। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে নৈহাটির বিজয়নগরে। পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হয় গরিফা গার্লস হাইস্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী। রাতে তার পরিবারের তরফে প্রতিবেশী যুবক আকাশ দত্ত’র বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করা হয়। বৃহস্পতিবার আকাশের মা মিতা দত্তকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের গোয়েন্দা প্রধান সি সুধাকর বলেন, ‘‘অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’ তবে আকাশের সঙ্গে পৌলমীর যে প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল, স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশই সে কথা জানিয়েছেন।





First Page| Calcutta| State| Uttarbanga| Dakshinbanga| Bardhaman| Purulia | Murshidabad| Medinipur
National | Foreign| Business | Sports | Health| Environment | Editorial| Today
Crossword| Comics | Feedback | Archives | About Us | Advertisement Rates | Font Problem

অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনও অংশ লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি
No part or content of this website may be copied or reproduced without permission.