আনন্দবাজার পত্রিকা - খেলা


 
টুকরো খবর
শুরুতেই হোঁচট বাংলার

বাংলা-০
পঞ্জাব-০

বাংলা-পঞ্জাবের সঙ্গে খেলা। বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ির
কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে বিশ্বরূপ বসাকের তোলা ছবি।
পুরোপুরি উতরোতে পারল না বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য-শিশির ঘোষ জুটি। দলের প্রধান স্ট্রাইকার নবীন হেলার বদান্যতায় বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে পঞ্জাবের সঙ্গে প্রথম ম্যাচ গোলশূন্য ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হল বাংলাকে। এমনিতে সন্তোষ ট্রফির ম্যাচে মেরেকেটে দু’তিনশোর বেশি দর্শক হচ্ছে না। তবে বৃহস্পতিবারের ছবিটা যেন একেবারেই আলাদা। একে তো ফ্লাড লাইটে ম্যাচ, তার ওপর বাংলা। স্বভাবতই গ্যালারিতে উৎসাহের কমতি নেই। স্টেডিয়াম জুড়ে প্রায় দু’হাজার সমর্থক। ভিআইপি গ্যালারিতে রেলওয়েজ-কেরলের ফুটবলার, ক্রীড়া পরিষদের কর্তা ও তাঁদের ঘনিষ্ঠদের ভিড়। কিন্তু বাংলার হয়ে যে প্রাণ খুলে হই-হুল্লোড় করবেন, সেই সুযোগ করে দিতে পারলেন না কার্তিক কিস্কুরা! ম্যাচের আগের দিন অনুশীলনে বাংলার কোচ শিশির ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, দলে বড়সর পরিবর্তন করতে চলেছেন তিনি। এ দিন নবীন-সহ যে ছ’জন নতুন ফুটবলারকে প্রথম এগারোয় রাখলেন, তাঁদের মধ্যে সবচেয়ে সফল গোলকিপার দেবজিৎ মজুমদার। তিনটে নিশ্চিত গোল বাঁচালেন। বাকি সুপ্রিয় ভগৎ, স্নেহাশিস দত্ত, অভিষেক আইচ ও গৌরাঙ্গ বিশ্বাস খেললেও, সেই ভাবে সাড়া জাগাতে পারলেন না। নবীনকে কেন এতক্ষণ মাঠে রাখলেন বাংলার কোচ, সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই পারে। ম্যাচ শেষের মিনিট পাঁচেক আগে নবীনকে বসিয়ে নীলকান্ত পারিয়াকে নামিয়েছিলেন শিশির। তাতে অবশ্য কোনও লাভ হয়নি। বাংলার বেহাল অবস্থা দেখে মাঠে উপস্থিত প্রাক্তন ফুটবলার শ্যাম থাপা বলছিলেন, “প্রথম দশ মিনিট যে ফুটবল খেলল বাংলা, সেটা বাকি আশি মিনিট আর দেখতে পেলাম না।” শুরুতেই দু’টো গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন অভিষেক, কার্তিকরা। অভিষেকের শট পোস্টে লেগেও ফিরে আসে। বাকি সময়টুকু শুধু-ই হতাশা। বাংলার কোচ বলছিলেন, “গ্যাংটকে অ্যাস্ট্রোটার্ফে খেলার পর এখানে ঘাসের মাঠে মানাতে একটু সমস্যা হচ্ছিল।”

হারের হ্যাটট্রিক রুখতে চান সঞ্জয়
চাই মহার্ঘ তিন পয়েন্ট! আই লিগ টেবলের শীর্ষে পৌঁছতে এক দলের দরকার জয়। আর অবনমনের রক্তচক্ষু এড়াতে ঠিক সেটাই দরকার আর এক দলের। এই আবহেই শুক্রবার যুবভারতীতে মুখোমুখি হতে চলেছে লিগে দু’নম্বর স্পোর্টিং ক্লুব দ্য গোয়া এবং আইএফএ শিল্ড জয়ী মহমেডান স্পোর্টিং। গোয়ার দলটি আই লিগে দ্বিতীয় স্থানে থাকলে, লুসিয়ানো-জোসিমাররা রয়েছেন পয়েন্ট টেবলে শেষের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে। শিল্ড, ডুরান্ডের মতো দু’দু’টো সর্বভারতীয় ট্রফি এই মুহূর্তে শোভা পাচ্ছে রেড রোডের পাশের ক্লাবে। কিন্তু আই লিগের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হতেই জয় হাতছাড়া সঞ্জয় সেনের দলে। শিল্ড জয়ের উৎসব ফিকে হতে না হতেই পুণে এফসি এবং সালগাওকরপরপর দু’ম্যাচে হারতে হয়েছে রহিম নবিদের। তাই স্পোর্টিং ক্লুবের বিরুদ্ধে হারের হ্যাটট্রিক রুখতে মরিয়া তিনি। ১৫ ম্যাচে কলকাতার দলটির পয়েন্ট ১৩। সেখানে ১৫ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট বইমা কারপে, ওগবা কালুদের। শুক্রবার জিতলেই তাঁরা ছুঁয়ে ফেলবেন প্রথম স্থানে থাকা বেঙ্গালুরু এফসি-কে। যদিও স্পোর্টিং ক্লুবের স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজো বলছেন, “চ্যাম্পিয়ন হতে গেলে জিততেই হবে। জয় না পেলেও এক পয়েন্ট দরকার। কিন্তু হারা চলবে না।”মহমেডান কোচ সঞ্জয় সেন আবার সমীহ করছেন বিপক্ষের দুই বিদেশি বইমা এবং কালুর আক্রমণাত্মক ফুটবলকে। এ দিন ইস্টবেঙ্গল মাঠে ঘণ্টা দেড়েক অনুশীলনের পর সঞ্জয় বললেন, “এই মুহূর্তে অবনমনের আওতায় থাকলেও তা নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি না। দু’টো ম্যাচ জিতলেই এই চাপ সরে যাবে। আগের দু’ম্যাচে প্রচুর গোল মিস হয়েছে। ছেলেরা কথা দিয়েছে স্পোটিং ক্লুবের বিরুদ্ধে সেই ভুল হবে না।”

ছোটদের ডার্বিতে আজ বদলার ম্যাচ বাগানের
অনূর্ধ্ব-১৯ আই লিগে শুক্রবার দুপুরে ঘরের মাঠে মোহনবাগানের মুখোমুখি হচ্ছে ইস্টবেঙ্গল। শনিবার চিডি-মোগাদের ডার্বি। তার আগে ছোটদের আই লিগের ফিরতি ম্যাচেও যাতে ইস্টবেঙ্গলই জেতে, সে জন্য লাল-হলুদ কোচ আর্মান্দো কোলাসো আলাদা করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তরুণ দে-র টিমকে। বৃহস্পতিবার সকালে অনুশীলনে নামার আগে তিনি ছোটদের বলেন, “মোহনবাগানকে হারানোর পর মহমেডানকেও হারিয়েছ। ফিরতি লিগেও সেই ধারা বজায় রাখতে হবে।” ইস্টবেঙ্গলের কাছে প্রথম পর্বের হারের পর ইউনাইটেড স্পোর্টসের কাছে ফের হেরে রীতিমতো চাপে মোহনবাগান। পাঁচ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট সাত। শুক্রবার হারলে আই লিগের পরের রাউন্ডে যাওয়ার আর কোনও আশাই থাকবে না বাগানের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে জোলরা বিশ্বকাপে পঞ্চম
অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে পঞ্চম স্থানে শেষ করল গতবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। এ দিন পঞ্চম স্থানের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪৬ রানে হারালেন বিজয় জোলরা। আগে ব্যাট করে পঞ্চাশ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ভারত তুলেছিল ৩৪০। দলকে টানেন ওপেনার অঙ্কুশ বেনস (৭৪) এবং সঞ্জু স্যামসন (৬৭) ও শ্রেয়স আইয়ার (৬৬) জুটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিনার গুডাকেশ মোতি-কানাই তিন উইকেট নেন ৫২ রানে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে আবার সফল ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ওপেনার তেজনারায়ণ চন্দ্রপল। শেষ ওভারে বিজয় জোলের বলে বোল্ড হওয়ার আগে যিনি ১৩৬ বলে ১১২ করে গেলেন। কিন্তু তাঁর দুরন্ত সেঞ্চুরিও দলকে জেতাতে পারলেন না। আট উইকেট হারিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ শেষ করল ২৯৪ রানে।

‘নরকে’ ড্র চেলসির
গালাতাসার-এর ‘নরক’ থেকে অক্ষত বেরিয়ে এল হোসে মোরিনহো-র চেলসি। তুরস্কের ক্লাবটির ঘরের মাঠের এই নাম দিয়েছেন সমর্থকেরা। কিন্তু গত রাতে সেই নরকেও ম্যাচ ১-১ ড্র রেখে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর ফিরতি পর্বে নিজেদের মাঠে ‘অ্যাডভান্টেজ পজিশনে’ থাকলেন ল্যাম্পার্ড-তোরেস-এটোরা। ৯ মিনিটে চেলসিকে তোরেস এগিয়ে দিলে দ্বিতীয়ার্ধে গালাতাসারেকে সমতায় ফেরান চিজু। পুরোনো ক্লাবের বিরুদ্ধে দ্রোগবা ৮০ মিনিটের বেশি মাঠে ছিলেন না। গোল তো পাননিই!

ওয়ার্নারের শাস্তি
দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বল বিকৃতির অভিযোগ এনে নিজেই সমস্যায় পড়লেন ডেভিড ওয়ার্নার। প্রতিপক্ষ সম্পর্কে প্রকাশ্যে আপত্তিকর মন্তব্য করা এবং অন্যায় অভিযোগ আনার অপরাধে তাঁকে ম্যাচ ফি-র ১৫ শতাংশ জরিমানা করল আইসিসি।




First Page| Calcutta| State| Uttarbanga| Dakshinbanga| Bardhaman| Purulia | Murshidabad| Medinipur
National | Foreign| Business | Sports | Health| Environment | Editorial| Today
Crossword| Comics | Feedback | Archives | About Us | Advertisement Rates | Font Problem

অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনও অংশ লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি
No part or content of this website may be copied or reproduced without permission.