আনন্দবাজার পত্রিকা - দেশ


 
সমর্থন করি না, খুরশিদের মন্তব্যে আপত্তি রাহুলের
মোদীর বিরুদ্ধে অশালীন শব্দ ব্যবহার করে বিজেপি-র রোষের মুখে আগেই পড়েছিলেন বিদেশমন্ত্রী সলমন খুরশিদ। বৃহস্পতিবার তাঁর নিজের দল, কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গাঁধীও প্রকাশ্যে জানিয়ে দিলেন, এ হেন ব্যক্তিগত আক্রমণের রীতিকে মোটেও সমর্থন করেন না তিনি। তবে ঘরে-বাইরে চাপের মুখে পড়েও দমছেন না সলমন। এ দিনও দাবি করেন, মোদীর বিরুদ্ধে কোনও অশালীন শব্দ ব্যবহার করেননি তিনি।
সলমনের মন্তব্য ঘিরে বিতর্কের সূত্রপাত মঙ্গলবার। নিজের লোকসভা নির্বাচনী কেন্দ্র ফারুক্কাবাদের এক সমাবেশে আচমকাই গোধরা-পরবর্তী দাঙ্গায় মোদীর নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে তাঁকে আক্রমণ করেন সলমন। বলেন, “আমরা মোটেও এই অভিযোগ আনছি না যে আপনিই গণহত্যা করেছেন। কিন্তু আপনি খুনিদের থামাতেও পারেননি।” এর পরেই মোদীর এই অপারগতাকে ইঙ্গিত করে তাঁর বিরুদ্ধে অশালীন শব্দ ব্যবহার করেন সলমন। যা নিয়ে সে দিন থেকেই বিদেশমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিষোদগার করা শুরু করেন বিজেপি নেতৃত্ব। রবিশঙ্কর প্রসাদ এবং মোদী-ঘনিষ্ঠ অরুণ জেটলি দাবি করেন, অশালীন ভাষা ব্যবহার করার কৌশল নিয়ে ইউপিএ মন্ত্রীরা হালে পানি পাওয়ার চেষ্টা করছেন। একই সঙ্গে সলমনকে ক্ষমা চাইতে হবে, এমন দাবিও তোলেন তাঁরা। বিজেপি নেতৃত্বের প্রশ্ন ছিল, তা হলে কি কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধীও এ হেন মন্তব্যকে সমর্থন করেন?
বস্তুত সে প্রশ্নেরই জবাব মিলেছে রাহুলের আজকের মন্তব্যে। কংগ্রেসের সদর দফতরে সাংবাদিকদের সামনে রাহুল আজ বলেন, “এ ধরনের মন্তব্য...এ ধরনের ভাষা মোটেও সমর্থন করি না।” রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ অবশ্য এর মধ্যে কংগ্রেসের অন্য কৌশলের আঁচ পাচ্ছেন। তাঁদের ধারণা, এক দিকে দলের সহ-সভাপতি ব্যক্তিগত আক্রমণের প্রকাশ্য বিরোধিতা করে কংগ্রেসের নৈতিক ভাবমূর্তি পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করছেন। গত মাসেও দলীয় কর্মীদের রাহুল স্পষ্ট বার্তা দিয়েছিলেন, কোনও ধরনের ব্যক্তিগত আক্রমণের পথেই তাঁরা যেন না হাঁটেন। কিন্তু সে নির্দেশ মানলেন না কংগ্রেসেরই মন্ত্রী। অর্থাৎ এক দিকে যেমন নিয়ন্ত্রণের বার্তা দেওয়া হচ্ছে, অন্য দিকে তেমনই চলছে লাগামহীন ব্যক্তিগত আক্রমণ।
এ প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের মুখপাত্র বলেন, “কংগ্রেস একটা বড় পার্টি। সেখানে কে কোথায় কী বলছেন, তাতে নজর রাখা সম্ভব নয়। তবে নীতিগত ভাবে সনিয়া-রাহুল এ ধরনের মন্তব্য সমর্থন করেন না।”
এ থেকেই স্পষ্ট, রাহুলের বিরোধিতার পরও এ ধরনের ব্যক্তিগত আক্রমণ থামবে, এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই।
তবে যে সলমনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ, তিনি এখনও বলে চলেছেন, “আমি কোনও অশালীন শব্দ ব্যবহার করিনি। কেউ কোনও কাজে অপারগ হলে তাঁকে আর কী বলব?” তাঁর দাবি, গুজরাত-পরবর্তী দাঙ্গা থামানোর ক্ষেত্রে মোদীর নিষ্ক্রিয়তা বোঝাতে অন্য কোনও শব্দই যথাযথ নয়।


First Page| Calcutta| State| Uttarbanga| Dakshinbanga| Bardhaman| Purulia | Murshidabad| Medinipur
National | Foreign| Business | Sports | Health| Environment | Editorial| Today
Crossword| Comics | Feedback | Archives | About Us | Advertisement Rates | Font Problem

অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনও অংশ লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি
No part or content of this website may be copied or reproduced without permission.