আনন্দবাজার পত্রিকা - দেশ


 
লোকপাল প্যানেলে থাকতে চান না নরিম্যান
লোকসভা ভোটের ঠিক আগে লোকপাল প্যানেল গঠন নিয়ে অস্বচ্ছতার অভিযোগে বিপুল অস্বস্তিতে কংগ্রেস তথা ইউপিএ সরকার। লোকপাল নিয়োগের জন্য তৈরি সার্চ প্যানেলে যোগ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ মনোনীত করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ আইনজীবী ফলি নরিম্যানকে। আজ প্রধানমন্ত্রীর দফতরে একটি চিঠি লিখে নরিম্যান জানিয়ে দিয়েছেন তিনি লোকপাল নিয়োগের এই প্যানেলে থাকতে চান না। তাঁর অভিযোগ, এই প্রক্রিয়ায় ‘ন্যায়নীতির’ তোয়াক্কা করা হচ্ছে না। গোটা বিষয়টিকে ‘ঠাট্টার’ পর্যায়ে নামিয়ে আনা হয়েছে।
নরিম্যানের এই পত্র-বোমার পরে স্বাভাবিক ভাবেই ঝড় উঠেছে রাজধানীর রাজনীতিতে। এই ঘটনায় প্রায় পড়ে পাওয়া চোদ্দো আনার মতো একটি মোক্ষম অস্ত্র পেয়ে গিয়েছে প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। অনেকেরই ধারণা, দুর্নীতি রোধে লোকপাল বিল পাশ করানোর কৃতিত্ব দাবি করে যে প্রচার রাহুল গাঁধী তথা কংগ্রেস করছে, নরিম্যান-কাণ্ডে তা বেশ খানিকটা ধাক্কা খাবে। ফলে লোকপাল-কাঁটা যে ভোটে কংগ্রেসের উপর ছায়া ফেলতে চলেছে, সে কথাও স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে।

ফলি নরিম্যান।
আইন অনুযায়ী, যে প্যানেল লোকপাল নিয়োগ করবে, তার দু’টি স্তর— ১) আট সদস্যের সার্চ প্যানেল (যারা একাধিক নাম প্রস্তাব করবে) এবং ২) পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট সিলেক্ট কমিটি (নাম চূড়ান্ত করবে)। প্রধানমন্ত্রীর তরফে ফলি নরিম্যানকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল সার্চ প্যানেলে যোগ দিতে। প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে আজ নরিম্যান চিঠিতে লিখেছেন, ‘আমি এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করছি। আমার বিনীত পযর্বেক্ষণ হল লোকপালের মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি সংস্থা এ ভাবে তৈরি করা যায় না।...সব চেয়ে যোগ্য, স্বাধীন এবং সাহসীদের এড়িয়ে যাওয়া হচ্ছে।’
নরিম্যানের তোলা এই অভিযোগ কিন্তু নতুন নয়। চলতি মাসের গোড়াতেই বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজ লোকপাল গঠনের প্যানেল তৈরির প্রশ্নে স্বজনপোষণ হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, ভোটের আগে কংগ্রেস বার্তা দিচ্ছে দুর্নীতি রোধে তারা কত আন্তরিক। লোকপাল নিয়োগের জন্য সিলেক্ট কমিটিতে বাধ্যতামূলক ভাবে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এবং লোকসভার বিরোধী দলনেতা। এ ছাড়াও আর এক জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে রাখার কথা। সুষমাদের বক্তব্য, এই পদে এমন এক ব্যক্তিকে রাখার চেষ্টা হচ্ছে যিনি কংগ্রেসের ঘনিষ্ঠ। তাঁর অভিযোগ, চল্লিশ বছর পরে যখন লোকপাল গঠন হচ্ছে সেই সময়ে কংগ্রেস সেটিকেও কুক্ষিগত করে রাখতে চাইছে। সোলি সোরাবজি, হরিশ সালভের মতো কিছু নাম বিজেপি প্রস্তাব করলেও তাতে রাজি হয়নি সরকার। যার জেরে অসন্তুষ্ট সুষমা অভিযোগ জানিয়ে চিঠি দেন রাষ্ট্রপতিকে।
আজ নরিম্যানের এই সিদ্ধান্তে খুশি বিজেপি। রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা অরুণ জেটলির কথায়, “ভোটের আগে দ্রুত নিজের লোক বসিয়ে লোকপাল গঠন করতে চাইছে সরকার তথা কর্মিবর্গ মন্ত্রক। সব প্রক্রিয়াগত বিষয়ে নিয়ম লঙ্ঘন করা হচ্ছে। লোকপাল গঠনের জন্য ব্যবহারিক দিক থেকে সহায়তা করার দায়িত্ব ছিল কর্মিবর্গ মন্ত্রকের। তা না-করে সব সিদ্ধান্ত নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে তারা। আজ নরিম্যানের সিদ্ধান্তে তা আরও স্পষ্ট হয়ে গেল।” প্রধানমন্ত্রীর দফতরের প্রতিমন্ত্রী ভি নারায়ণস্বামীকে চিঠি দিয়ে নরিম্যান তাঁর সিদ্ধান্ত জানান। এ প্রসঙ্গে নারায়ণস্বামীর বক্তব্য, “লোকপাল গঠনের প্রশ্নে যথেষ্ট স্বচ্ছ প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হয়েছে। সার্চ কমিটির সদস্য কে হবেন, তা ঐকমত্যের ভিত্তিতেই ঠিক করা হয়েছে।
কেউ সেই দায়িত্ব নিতে চাইছেন না মানে এমন নয় যে গোটা প্রক্রিয়াটিই ত্রুটিপূর্ণ।”


First Page| Calcutta| State| Uttarbanga| Dakshinbanga| Bardhaman| Purulia | Murshidabad| Medinipur
National | Foreign| Business | Sports | Health| Environment | Editorial| Today
Crossword| Comics | Feedback | Archives | About Us | Advertisement Rates | Font Problem

অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনও অংশ লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি
No part or content of this website may be copied or reproduced without permission.